Author

অধ্যাপক মুজিবুর রহমান

অধ্যাপক মুজিবুর রহমান ১৯৫৫ সালের পহেলা জানুয়ারি রাজশাহী জেলার অন্তর্গত পদ্মা নদীর ধারে চর আলাতুলি গ্রামে একটি ঐতিহ্যবাহী ইসলামী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম মোল্লা এলাকার বিশিষ্ট সমাজকর্মী, মাতা হামিদা খাতুন একজন ইকামতে দ্বীনের দায়ী । পদ্মা নদীর ভাঙ্গন এলাকা থেকে তাঁরা গোদাগাড়ী থানার মহিশালবাড়ি গ্রামে চলে আসেন।গোদাগাড়ী উপজেলার মহিষাল বাড়ির সাগরপাড়া গ্রামের তিনি স্থায়ী অধিবাসী। দুই পুত্র ও দুই কন্যা সন্তানের জনক অধ্যাপক মুজিবুর রহমান।

প্রাথমিক শিক্ষা মায়ের কাছেই গ্রহণ করেন ও সাত বছর বয়সে কোরআন মাজীদ প্রথমবার সমাপ্ত করেন। আলাতুলি প্রাইমারি স্কুল সমাপ্ত করে গোদাগাড়ী হাইস্কুলে ভর্তি হন। ১৯৭০ সালে গোদাগাড়ী হাই স্কুল থেকে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় মানবিক বিভাগে মেধা তালিকায় তৃতীয় স্থান অধিকার করেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি বিষয়ে অনার্স সহ মাস্টার্স ডিগ্রি সমাপ্ত করেন। প্রাথমিক জীবন থেকেই ইসলামী আন্দোলনের সাথে কাজ করেন। ছাত্র জীবন শেষ করে বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। সরকারী চাকুরীর জন্য নিয়োগ প্রাপ্ত হলেও ইসলামী আন্দোলনের স্বার্থে বিসিএস ক্যাডার এর চাকরি সেক্রিফাইস করেন। এছাড়া তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মডার্ন এ্যারাবিক সার্টিফিকেট কোর্সে প্রথম বিভাগে ও মডার্ন পারসিয়ান সার্টিফিকেট কোর্সে প্রথম বিভাগে প্রথম স্থানসহ উত্তীর্ণ হন। ছাত্র জীবনে রচনা ও বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় রেখেছেন কৃতিত্বের স্বাক্ষর।

তিনি শিক্ষকতা পেশাকে বেছে নেন। রাজশাহীর প্রেমতলী ডিগ্রী কলেজ ও বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম ডিগ্রি কলেজ এবং শিবগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে ইংরেজি বিষয়ে অধ্যাপনা করেন।
১৯৮৬ সালে রাজশাহী-১ আসন থেকে নির্বাচিত হয়ে জাতীয় সংসদে ১৯৮৭ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে প্রথম নামাজের বিরতি চালু হয় তাঁর চেষ্টায়। এছাড়া সংসদে শোক প্রস্তাবের সাথে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নীরবতা পালনের ক্ষেত্রে চালু হয় মুনাজাত করার রীতি। তৎকালীন বিরোধী দলের এমপিগণের দৃঢ় অবস্থানের কারণে স্পীকার এই প্রথা প্রচলনে বাধ্য হন। তখন থেকে এ পর্যন্ত সংসদে নামাজের সময় বিরতী ও শোক প্রস্তাবের সময় মোনাজাত করার পদ্ধতি চালু আছে।

সমাজ ও রাজনীতির শত ব্যস্ততার মধ্যেও অধ্যাপক মুজিবুর রহমান একজন লেখক হিসেবে সাদকায়ে জারিয়ার নিয়তে কিছু বই লিখে প্রকাশ করেছেন। তাঁর রচিত ও প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে আছে ১) সহজ কথায় ইসলামী আন্দোলন ২) আখেরাতের প্রস্তুতি, ৩)আগে নামাজ পরে কাজ, ৪)শেষ নিবাস, ৫)রুগীদের জন্য সুসংবাদ, ,আল্লাহর পথে খরচ, ৬) এক নজরে হজ্জ ৭) সহজ কথায় ইসলামী আন্দোলন, ৮) ওশর, ৯) ইউরোপে একমাস, ১০) ইসলামী আচরণ, ১১) নির্বাচিত হাজার হাদীস, ১২) আরব ভূখন্ডে কিছুক্ষণ ১৩)কম হাসো বেশী কাদো ইত্যাদি।

লেখার পাশাপাশি প্রায় সময় দেশব্যাপী সফর করে তিনি বিভিন্ন ইসলামী আলোচনা সভা ও প্রশিক্ষণ কর্মসূচীতে বিষয় ভিত্তিক বক্তৃতা দিয়ে থাকেন। অধ্যাপক মুজিবুর রহমান শুধুমাত্র একজন রাজনীতিক ব্যক্তিত্ব নন, তিনি দেশের একজন স্বনামধন্য শিক্ষাবিদও। শিক্ষা বিস্তার, শিক্ষা সম্প্রসারণে রয়েছে তার বলিষ্ঠ অবদান। তিনি বহু স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, এতিমখানা প্রতিষ্ঠাসহ বেশ কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সমস্যা সমাধানে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন। মহিষালবাড়িতে তাঁর প্রতিষ্ঠিত দারুল উলুম মহিলা ফাজিল মাদ্রাসা, আল ইসলাহ ইসলামী একাডেমী, আদর্শ স্কুল প্রেমতলী এবং তানোর মাদ্রাসাতুল ইসলাহিয়া শিক্ষা বিস্তারে অগ্রণী ভূমিকা রেখে চলেছে।

অধ্যাপক মুজিবুর রহমান সাংগঠনিক প্রয়োজনে ও আন্তর্জাতিক ইসলামিক শ্রমিক সংগঠনের দাওয়াতে পৃথিবীর বেশ ক’টি দেশ ভ্রমণ করেছেন। এসব দেশের মধ্যে আছে সৌদি আরব,যুক্তরাজ্য, ইতালী, জার্মানী, দক্ষিন কোরিয়া, জাপান,ফ্রান্স, আরব আমিরাত ভারত,থাইল্যান্ড,পাকিস্তান, মালেশিয়া ও মরোক্কা।

Author's books

1 2